অনলাইন থেকে সবাই আয় করতে চায়। কিন্তু সবাই কি ইনকাম করতে পারে ?

আপনারা ফেসবুকে বা কোনো ওয়েবসাইটে গেলেই দেখতে পারবেন অনলাইন ইনকাম নিয়ে হাজার হাজার টিউন। তারা এমন ভাবে টিউন লিখে, যে অই সাইটে জয়েন করার সাথে সাথে ১০০০ ডলার বোনাস দিবে।

কিন্তু তারা একবারো চিন্তা করে না ১০০০ ডলারে কতো টাকা হয় বা অই কোম্পানি কেনো তাকে এতো টাকা বোনাস দিবে। কিছু না বুঝেই জয়েন করে কাজ করে তারপর পেমেন্ট না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরে আসে আর তার মনের মধ্যে ভুল ধারনার জন্ম নিয়ে নেয়, যে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায় না।

অনলাইন থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায় ?

অনলাইন থেকে ইনকাম করার জন্য আপনাকে অবশ্যই কোনো কাজ শিখতে হবে। কারন আপনি যদি কোনো কাজ ই না পারেন তাহলে আপনি কি কাজ টাই করবেন আর কিভাবেই বা ইনকাম করবেন। তাই অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে প্রথমে একটা কাজ শিখুন ভালো ভাবে।

আমি কোনো কাজ পারি না তাহলে কি আমি ইনকাম করতে পারবো না ?

অনলাইন ইনকাম এর অনেক কাজ আছে আপনি কোনো কাজ না শিখেও ইনকাম করতে পারবেন। কিন্তু ফ্রী তে কাজ করতে হলে আপনাকে অনেক বেশি ধৈর্য ধরতে হবে কারন ফ্রী ইনকাম এর কাজ গুলা বা প্রফেশনালি কোনো কাজ না শিখে অনলাইন থেকে ইনকাম করতে হলে আপনার অনেক বড় একটা টিম লাগবে মোটামুটি ভালো একটা আরনিং এর জন্য।

যাই হোক, এখন কাজের কথায় আসি আমি মূলত কাজ করি সিপিএ মার্কেটিং নিয়ে সাথে ফেসবুক ফলোয়ার মেথড নিয়ে কাজ করি। ফেসবুকে অনেকেই দেখি মেসেজ করে, ভাইয়া আমি সারাদিন ফেসবুকেই থাকি অনলাইন থেকে কিছু টাকা ইনকাম করতে চাই কিন্তু আমি কোনো কাজ পারি না তাহলে কি আমি ইনকাম করতে পারবো না?

আজকের টিউন টা মূলত তাদের জন্যই, আজকে একটা কাজ দেখাবো এই কাজ টা ইচ্ছে হলে করতে পারেন। আমি প্রথমেই বলছি যেহেতু ফ্রী ইনকাম তাই আপনি যদি ভালো একটা টিম করতে না পারেন তাহলে কখনই সফল হতে পারবেন না।

Apps Name : Pluto

এই অ্যাপস টি খুব বেশি দিনের না, তার মধ্যেই অনেক মানুষ কাজ করা শুরু করে দিয়েছে। বাংলাদেশে কাজ টি এসেছে ১৫ আগস্ট। বাংলাদেশি ১০০ + লিডার জয়েন করে কাজ শুরু করে দিয়েছে।

আপনারা মোটামুটি সবাই Champcash এর কথা শুনছেন এইটা ২০১৫ সালে শুরু হয় এবং যারা ঠিক মতো কাজ করছে তারা একেকজন এখন সাকসেস লিডার সবার ইনকাম মোটামুটি ২০০-৫০০ ডলার যারা কাজ করছে ঠিক মতো আর তাদের টিম ও অনেক বড়। এখন কোম্পানি যতদিন আছে তাদের ও ইনকাম হবে ততদিন, যদি কাজ নাও করে তবুও টিম থেকে ইনকাম হবে।

এই অ্যাপস টি নিয়ে কথা বলার কিছু কারন ঃ

এই কাজ টা বাংলাদেশে নতুন তাই আপনি খুব সহজে বড় একটা টিম বানাতে পারবেন

ইন্ডিয়া তে ১০ টাকা হলেই Paytm এ টাকা নেওয়া যায় আর বাংলাদেশ এ মাত্র ৩০০ টাকা হলেই বিটকয়েনে উইথড্র দেওয়া যায় (এইখানে ব্যালেন্সে টাকা দেখায়, ডলার না)

সব থেকে বড় কথা আমাদের বাংলাদেশিদের জন্য বিকাশ পেমেন্ট মেথড অ্যাড হবে সামনের মাসের মধ্যে।
১০ % রেফার কমিশন ১০ লেভেল পর্যন্ত (যেহেতু নতুন তাই খুব সহজে বড় টিম করতে পারবেন)

প্রতিদিন নিজের কাজ করতে হয় ১ ঘণ্টার মতো এবং মেগাবাইট লাগে ২০/২৫ এম্বি তাই বাকি সময় রেফার এর পিছনে সময় দিতে পারবেন।

কাজ টি নতুন তাই এখন কাজ কম আস্তে আস্তে কাজ বাড়বে এখন নিজের ইনকাম হয় মাত্র ১০ টাকা প্রতিদিন। কথাটা শুনে হয়তোবা অনেকে কাজ করতে চাইবেন না কিন্তু একটা কথা ভালভাবে বুঝার চেষ্টা করুন আপনার যদি ১০০ জনের একটা টিম থাকে তাহলে ১০০*১০= ১০০০ টাকার ১০% অর্থাৎ ১০০ টাকা আপনি পাবেন প্রতিদিন। আর আপনার অই ১০০ জন যদি ২ জন করেও রেফার করে তাহলে ১০০*২= ২০০ জন ও আপনার ২য় লেভেল এর রেফার হয়ে যাবে। সেইখান থেকে পাবেন ২০০*১০=২০০০ টাকার ১০% অর্থাৎ ২০০ টাকা তাহলে আপনার ডেইলি ইনকাম ৩০০ টাকা হয়ে গেলো এইভাবে ১০ লেভেল পর্যন্ত হিসাব করে দেখেন আপনার ইনকাম কত হয়।

আসল কথা হচ্ছে যারা এখন ধৈর্য ধরে কাজ করবে তারাই আগামি দিনের সাকসেস লিডার।

কাজ শুরু করবেন যেভাবে ঃ
প্রথমে প্লে স্টোর থেকে অ্যাপস টি ইন্সটল করুন। এখানে ক্লিক করে ইন্সটল করুন

সাইন আপ করুন এইটা অবশ্যই সবাই পারবেন
রেফার কোড দিবেন ঃ FM91XE

ফোন নাম্বারের জায়গায় আপনার নাম্বার টি দিবেন অবশ্যই ১ থেকে শুরু করবেন প্রথমের ০ টি দিলে ফোনে কোড যাবে না, দেশ বাংলাদেশ সিলেক্ট করে নিবেন।
যদি otp code ফোনে না আসে তাহলে মিনিমাইজ করে আমাকে Whatsapp এ মেসেজ করবেন আমি কোড পাঠিয়ে দিবো

Whatsapp Number : 01632263775

আপনি জয়েন করার পর আপনাকে whatsapp group এ অ্যাড করে নেওয়া হবে সেখানে সব প্রশ্নের উত্তর, Payment Proff, সব ই পাবেন।

তাই দেরি না করে কাজ শুরু করে দিন, জাস্ট ১ মাস মন দিয়ে কাজ করুন ইনশাআল্লাহ সফল হবেন কথা দিলাম।
কাজ করতে চাইলে অবশ্যই whatsapp এ মেসেজ দিবেন সেখানেই কাজ শিখিয়ে দেওয়া হবে।

(12)

ফেসবুক থেকে কমেন্ট করুন

আরও কিছু বার্কস

>> বার্কটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*